Movie Review: Jeet-Subhasree starrer ‘Boss’; The Film which marked multiple comebacks

4
223
movie poster boss

Tollywood-hero-jeet

সারা হলে ঘন ঘন সিটি তথা করতালি প্রমান করে দেয় যে Mithun Chakraborty এবং Prosenjit Chatterjee-র পরে ‘MANLY HERO’ বলতে বাংলা বাণিজ্যিক ছবির দর্শক শুধু Jeet কেই বোঝে ।

Boss-এর হাত ধরে বাংলা ছবিতে বেশ কয়েকটি COMEBACK ঘটেছে । একক নায়ক হিসাবে Jeet , চিত্রনাট্যকার-সংলাপ লেখক হিসাবে N.K.Salil, সঙ্গীত পরিচালক Jeet Ganguly, প্রযোজক Reliance Entertainment এবং সর্বোপরি নায়িকা Subhosree Ganguly-র। আরেকজনের কথাও আলাদা করে বলতে হবেই, তিনি হচ্ছেন বাংলা ছবির প্রাক্তন ‘বড়দা’ তথা action hero cum film director চিরঞ্জীৎ চক্রবর্তী (Chiranjeet Chakraborty), যিনি বর্তমানে তৃণমূল কংগ্রেসের এক বিধায়ক- ও বটে। এই ছবিতে এই প্রাক্তন নায়ককে পুনরায় অভিনয়ের জগতে ফিরিয়ে আনার পিছনে বিশেষ কোন তাৎপর্য ধরা পড়েনি, যদিও চিরঞ্জীৎ দা কে Mumbai Police Commissioner তথা নায়িকার বাবা  রূপে পর্দায় মানিয়েছে বেশ।

ছবির গল্প নিয়ে কিছু কথা বলার আছে। Boss- এর গল্প Puri Jagannath পরিচালিত দক্ষিন ভারতীয় হিট ছবি ‘ The Businessman’ দ্বারা অনুপ্রানিত। তাই N.K.Salil কে এই গল্পের মৌলিকতার কৃতিত্ব দেওয়া যাবেনা, কিন্তু সলিল এমন সব ধারালো সংলাপ লিখেছেন যে বাঙালি বাণিজ্যিক ছবির দর্শকদের শরীরের রক্ত গরম হয়ে যেতে বাধ্য। যদিও বিশেষ একটি সংলাপ কে ভারতীয় Censor ছাড়পত্র দেয়নি। এই ছবির টানটান চিত্রনাট্য এবং সংলাপ ছবিকে দুর্বার গতিতে এগিয়ে নিয়ে গেছে। অধিকাংশ দৃশ্যে কিছু না কিছু নতুন চমক দর্শকদের জন্য আছে।

নায়ক সূর্য কলকাতা থেকে মুম্বইতে আসে, একজন Mafia Don হাওয়ার লক্ষ্য সামনে রেখে। মুম্বইতে পৌঁছে সূর্য পুলিশ প্রধানের একমাত্র মেয়ে তথা এক নামি মডেল রুশা কে নিজের প্রেমের জালে ফাঁসিয়ে নেয় তারপর একজন দ্বিতীয় সারির রাজনৈতিক নেতা গোপীনাথের সঙ্গে ব্যবসায়িক সম্পর্ক স্থাপন করে। মুম্বই-এ সূর্যর উদয়ে দিল্লী রাজনীতি পর্যন্ত কেঁপে ওঠে। কেন্দ্রের এক মন্ত্রীর সঙ্গে সূর্যর শত্রুতা তৈরি হয়। এরপর কি হল? জানতে হলে হলে গিয়ে দেখে আসুন ‘BOSS’ !!!

খলনায়ক রূপে রজতাভ দত্ত প্রায় একইরকম কাজ করেছেন, যেমন তিনি অন্যান্য বাংলা ছবিতে করে থাকেন, নতুন কিছু পাওয়া যায়নি। বাকি চরিত্র গুলিতে সুপ্রিয় দত্ত, বিশ্বনাথ, বিশ্বজিৎ চক্রবর্তী, দিব্যেন্দু, জয় বদলানি, সবাই মোটামুটি নিজের কাজটি উতরে দিয়েছেন ।

“BOSS” আসলে শুধুমাত্র জিৎ-এর ছবি। 

এই ছবিতে সত্যিই ‘বাংলার বাঘের’ মতই দাপিয়ে অভিনয় করেছেন এই macho নায়ক। আমার মনে হয়েছে এত উচ্চমানের চোখের অভিনয় বাংলা  Main stream cinema তে বহু বছর দেখা যায়নি। কিছু দৃশ্যে জিৎ শুধু নিজের দুটি চোখ ব্যবহার করে এমন সব গভীর অভিব্যক্তি তুলে ধরেছেন, যার জন্য কোন প্রশংশাই যথেষ্ট নয়। Action sequence গুলি তে জিৎ এমন কিছু stunt করেছেন যা বাংলা ছবির অন্য কোন নায়ক করতে সাহস পেতেন কিনা তা নিয়ে সন্দেহ থেকে যায়। Jeet- এর কোন সংলাপেই কখনো কোনো বিশ্বাসযোগ্যতার অভাব লক্ষ্য করা যায়নি। আসল কথা হচ্ছে প্রচণ্ড মশলাদার সংলাপও যদি আত্মবিশ্বাস নিয়ে বলা যায়, তাহলে সেগুলি দর্শকদের মনে দাগ কাটতে বাধ্য।

এই প্রসঙ্গে মিঠুনদার কথা টেনে আনতেই হয়। মিঠুনদার ছবির এক একটি সংলাপ বাঙালি দর্শকরা সাদরে গ্রহন করে, বহু বছর ধরে মনে রেখে দিয়েছেন (Example – মারবো এখানে, লাশ পরবে শ্মশানে অথবা পাবলিকের মার কেওড়াতলা পার )। এইসব সিনেমা গুলির নাম দর্শকরা ভুলে গেলেও, মিঠুনদার এই গরম গরম সংলাপ গুলি কখন ভুলতে পারেনা, যারা এই সিনেমা গুলি দেখেনি তারাও এই সংলাপ গুলি জানেন, এতটাই জনপ্রিয় এই সংলাপ গুলি। Dialogues সংক্রান্ত এতো তথ্য এখানে তুলে ধরার কারন হচ্ছে Boss-এর সংলাপ বাঙালি দর্শকদের দেদার আনন্দ জুগিয়েছে এবং এর পিছনে যতটা সলিলের অবদান, ঠিক অতটাই জিতেরও সাফল্য। মজার কথা হচ্ছে এই যে মিঠুনদার প্রায় সব সুপারহিট সংলাপই কিন্তু সলিলেরই লেখা।

poster-beautiful-tollywood-actress-Subhasree

নায়িকা হিসাবে শুভশ্রীর এটি Second innings বলা চলে কারন Sri Venkatesh Films এর Brand-এর বাইরে Boss শুভশ্রীর প্রথম বড় release এবং নিজের একসময়ের ‘ভালো বন্ধু’ Dev-এর সঙ্গে এবার কাজ না করে তিনি কাজ করেছেন দেবের একরকম প্রতিদ্বন্দ্বী জিৎ-এর বিপরীতে। Boss-এর এই আশাতীত সাফল্য এই নায়িকাকে বাংলা ছবির ইঁদুর দৌড়ে টিকিয়ে শুধু রাখবে না বরং নতুন করে অক্সিজেন যোগাবে। Fashion Model সুলভ সাহসী এবং glamorous costumes-এ শুভশ্রীকে খুব sexy লেগেছে কারন তার figure এইসব পোশাক সঠিক ভাবে carry করার উপযুক্ত। অভিনয়তেও ফাটিয়ে দিয়েছেন বাংলা ছবির এই লাস্যময়ী নায়িকা। এই ছবির ‘রুশা’ কে দেখে পুরুষ দর্শকদের তার সঙ্গে সত্যি সত্যি প্রেম করতে মন চাইবে, এখানেই শুভশ্রীর সাফল্য।

আরেকজনের কথা ভুলে গেলে চলবেনা, তিনি হচ্ছেন সঙ্গীত পরিচালক জিৎ গাঙ্গুলি। ‘মন মাঝিরে’ গানটি এমন এক গান, যা দর্শক/শ্রোতা দের মন চুরি করে নেবে, এই কথা হলফ করে বলা যায় । প্রসেন-এর কথায় এই গানে দুর্দান্ত সুর দিয়েছেন জিৎ গাঙ্গুলি এবং অরিজিৎ সিংহ (Arijit Singh) এই গানটিকে এক অন্য level-এ নিয়ে চলে গেছেন তার কণ্ঠের জাদুতে। এই গানটি ছাড়াও Boss-এর Title Track (যেটি নিজেই গেয়েছেন জিৎ গাঙ্গুলি) বেশ জনপ্রিয় হয়েছে শ্রোতাদের কাছে।

বিখ্যাত Choreographer Baba Yadav এর এটাই প্রথম Directorial প্রোজেক্ট এবং একথা স্বচ্ছন্দে বলে দেওয়া যায় যে বাবা যাদব ভবিষ্যতেও ছবি পরিচালনা করার ক্ষমতা রাখেন।

আমার রিলায়েন্সের জন্যে খুব ভালো লাগছে, এই ছবি ফ্লপ করলে  হয়তো রিলায়েন্স বাংলা সিনেমা প্রযোজনা করার সিদ্ধান্ত নিয়ে বিচার বিবেচনা করতো কিন্তু Boss সুপারহিট হয়ে রিলেয়ান্স গোষ্ঠীর আত্মবিশ্বাস একশো গুন বাড়িয়ে দিলো, বলেই আমার ধারনা। আশা রাখলাম রিলায়েন্স এরপর তাদের ‘দিওয়ানা’, ‘মহাপুরুষ ও কাপুরুষ’, গনেশ টকিজ, অলীক সুখের দুঃখ ভুলে Boss-এর সাফল্যের কথা মাথায় রেখে ভবিষ্যতের দিকে এগিয়ে যাবে।

পরিশেষে দুটো ব্যাপারের উল্লেখ করবো – প্রথম- শুরুতেই যে পর্দায় ভেসে উঠলো যে এই ছবি আসলে পুরি জগন্নাথ সাহেবের ‘দ্য বিজনেজম্যান’-এর অনুসরনে নির্মিত। এই লেখা পড়ে বেশ ভালো লাগলো, original film -টিকে যে স্বীকৃতি দেওয়া হল, সেটাই অনেক। দ্বিতীয় – গল্পটি মুম্বই ভিত্তিক কিন্তু বাঙালি দর্শকদের বোঝার সুবিধের জন্যে চরিত্র রা সবাই বাংলায় কথা বলবে, এই declaration -টিও বেশ উপযোগী লাগলো।

এই লেখা না পড়লে হয়তো আমি নিজেই সমলোচনা করে বসতাম যে মুম্বইতে সবাই এমন চোস্ত বাংলা বলছে কিভাবে?

 

Movie Review By:
Sanjib BanerjiSanjeeb Banerji takes a keen interest in both Old and Contemporary/modern Bengali literature and cinema and have written several short stories for Bengali Little magazines. He also runs a little magazine in Bangla, named – Haat Nispish, which has completed its 6th consecutive year in the last Kolkata International Book Fair. Being the eldest grandson of Late Sukumar Bandopadhaya, who was the owner of HNC Productions and an eminent film producer cum distributor of his time (made platinum blockbusters with Uttam Kumar, like “Prithibi Aamarey Chaaye”, “Indrani” and several others), Sanjib always nurtured an inherent aspiration of making it big and worthy in the reel arena. He has already written few screenplays for ETV BANGLA.

Sanjib can be reached at sanjib@sholoanabangaliana.com

 

Poster Credit: Google Images

Enhanced by Zemanta

4 COMMENTS

  1. There should be an achieve of Sanjib’s Reviews. Each of these are Collector’s Items by their own merits.

LEAVE A REPLY

Please enter your name here
Please enter your comment!