New Bangla Movie The Play: Movie Review, Poster, Trailer

0
163
The Play

বাংলা ভাষায় ভালো জাতের রহস্য ছবি খুব বেশি হয়নি। তাই রহস্যের গন্ধ পেলেই আমার মতন কিছু রহস্যপ্রেমী সিনেমা হলের সিটে নড়ে চড়ে বসে। কিন্তু ছবির চিত্রনাট্য যখন পথ হারিয়ে এদিক ওদিক ছিটকে যায় তখন মনে একপ্রকার বিরক্তির উদ্রেক ঘটে। দ্য প্লে দেখতে বসেও এই পরম্পরার অন্যথা ঘটলো না। অথচ ছবির শুরুটা বেশ ইন্টারেস্টিং হয়েছিলো। একটা নাটকের দলের বিভিন্ন সদস্যদের মধ্যে প্রেম, অপ্রেম, হিংসা, ঘাত, প্রতিঘাত নিয়ে গল্প বেশ তরতরিয়ে এগিয়ে চলছিলো। দ্য প্লে কে বলা চলে নিউ এজ মুভি কারন এই ছবির কলাকুশলীরা সবাই নতুন প্রজন্মের। রাজদীপ দত্ত, মুমতাজ সরকার, ইন্দ্রাশিস রায়, সম্পুরনা চক্রবর্তী, এরা প্রত্যেকেই মডেলিং অথবা টেলিভিশনের হাত ধরে সিনেমার জগতে এসেছেন। এরা যথেষ্ট ঝকঝকে, উজ্জ্বল, আধুনিক অভিনয়ে বিশ্বাসী যুবক যুবতী তাই এদের প্রত্যেকের কাছ থেকে টলিউডের অনেক আশা কারন ভবিষ্যতে এদের হাত ধরেই আসতে পারে বাংলা সিনেমায় আধুনিকতার নতুন জোয়ার। তাই এই গ্রুপটার সঙ্গে যখন রাজেশ শর্মা এবং নীল মুখোপাধ্যায়ের মতন পোড় খাওয়া অভিনেতার স্কিল যুক্ত হল, তখন দর্শকদের মনে হতে লাগলো যে ‘দ্য প্লে’ আক্ষরিক অর্থেই একটা নিউ এজ বাংলা সিনেমা। মানসিকভাবে বেশ খানিকটা ফ্রেশ লাগছিলো সিনেমাটা দেখতে দেখতে এবং গল্পটার মধ্যেও বেশ উৎসাহব্যঞ্জক উপাদান ছিল। কিন্তু প্রথম এক ঘণ্টায় পর্যন্ত গল্প যখন কিছুই এগোল না তখন সিঁদুরে মেঘ দেখতে আরম্ভ করলাম, আসলে আমরা দর্শকরা এক একজন ঘর পোড়া গরু তো !!!

যাই হোক! মধ্যান্তরের ঠিক প্রাকমুহূর্তে একটা খুন হয়ে যাওয়ায় দর্শকদের মনে হতে লাগলো রহস্য জমে গেছে। আমরা অধীর আগ্রহে অপেক্ষা করতে লাগলাম মধ্যান্তরের পরবর্তী অংশের দেখার জন্যে। কিন্তু আমাদের সমস্ত আশায় জল ঢেলে দিলেন ছবির চিত্রনাট্যকার। অত্যন্ত নিম্নমানের স্ক্রিপ্ট একটা মোটামুটি ইন্টারেস্টিং গল্পকে মাঝমাঠেই খেলা থেকে আউট করে দিলো।

সিনেমার চিত্রনাট্যের তিনটে স্থর থাকে, উৎস – প্রবাহ – ধারা। দ্য প্লে-র উৎস ঠিকঠাক হলেও প্রবাহ এবং ধারা দুটোই দিশাহারা। গল্পের এগিয়ে চলা এবং শেষ হাওয়া সবটাই যেন কেমন আলটপকা কিম্বা ফাঁপা।

অভিনয়ে রাজেশ শর্মা (Rajesh Sharma) এবং ইন্দ্রাশিস রায় (Indrasish Roy) ছাড়া আর কাউকেই তেমন চোখে লাগেনি আমার। ডামাডোল এবং মুক্তির পরে রাজদীপের এটি তিন নম্বর ফ্লপ ছবি। প্রেম, ব্রেক আপ আবার নতুন প্রেম এসব ছেড়ে এবার যদি নিজের কেরিয়ারের দিকে মন না দেন রাজদীপ, তাহলে তার জন্যে তার জন্যে বড্ড দেরি হয়ে যাবে। মুমতাজ (Mumtaz Sorcar) অনেক ভালো কাজের অফার পাচ্ছেন এবং এই ছবিতে তিনি একটু ডার্ক শেডেড চরিত্রে খারাপ অভিনয় করেননি। এবার মুমতাজকে স্ক্রিপ্ট সিলেকশনের দিকে তীক্ষ্ণ নজর দিতে হবে, যদি তিনি টলিউডে নিজের স্থান ধরে রাখতে চান কারন এমন নিম্নমানের ছবিতে বারবার অভিনয় করলে মুমতাজ নিজের কেরিয়ারের ক্ষতি নিজেই করতে থাকবেন। রাজেশ শর্মা নিজের অভিনয়ের দ্বারা রহস্যের গন্ধটাকে ধরে রাখার যথাসাধ্য চেষ্টা করে গেছেন কিন্তু দুর্বল চিত্রনাট্য তার এই প্রচেষ্টাকে সফল হতে দেয়নি। নীল মুখোপাধ্যায় (Neel Mukhopadhyay) নিজের ইমেজ থেকে বেরিয়ে এসে একটা অন্যধরনের চরিত্রে অভিনয় করেছেন এবং বেশ ভালোই কাজ করেছেন কিন্তু ওই এলোমেলো স্ক্রিপ্ট তার চরিত্রটিকেও দানা বেঁধে উঠতে দেয়নি। নবাগতা সম্পুরনা (Sampurna Chakraborty) ভালো কাজ করেছেন কিন্ত ‘আনিয়া’ চরিত্রটাও এতোটাই দিশাহারা যে এই নবাগতার অভিনয় প্রতিভার সম্পূর্ণ বিকাশ এই ছবিতে অন্তত ঘটলো না। বরং ইন্দ্রাশিস রায়কে অনেকদিন পরে ছবির পর্দায় ফিরে পেয়ে বেশ লাগলো। মাথা ঠাণ্ডা রেখে সঠিক পথে এগিতে চললে এই নবীন অভিনেতার ভবিষ্যৎ বেশ উজ্জ্বল।

জয় সরকারের (Joy Sarkar) সঙ্গীত পরিচালনা ছবির থিমের সঙ্গে বেশ খাপ খেয়ে গেছে। জয়দা যে নিজে এতো ভালো গান গান, সেটা আমরা কেউ এর আগে বোধয় জানতাম না। শৌভিক বসুর চিত্রগ্রহণ রহস্য গল্পের সাসপেন্সের ঘনত্ব কায়েম রাখতে সার্বিকভাবে ব্যর্থ। সুজয় দত্ত রায়ের সম্পাদনা নিয়ে যত কম কথা বলা যায় ততই ভালো। ছবির শুরুর সঙ্গে শেষের কোন যোগসূত্র খুঁজে পাওয়া যায়না। প্রযোজক শঙ্কর চৌধুরী এবং অমিতাভ রায়ের উচিৎ ছিল পরিচালক রনজয় রায়চৌধুরীর (Ranjay Ray Chowdhury) সঙ্গে বসে চিত্রনাট্য নিয়ে বিশদে আলোচনা করে সিদ্ধান্ত নেওয়া। আর পরিচালক রনজয় রায়চৌধুরীর উচিৎ ছিল নিজের সীমাবদ্ধতা বুঝে, এই ছবির চিত্রনাট্য কোন যোগ্য চিত্রনাট্যকারকে দিয়ে লিখিয়ে নেওয়া। কিন্তু এই মুহূর্তে নির্ভেজাল রহস্যধর্মী চিত্রনাট্য লিখতে পারেন এমন তীক্ষ্ণ স্ক্রিপ্টরাইটার, টলিউডে কেউ আছেন কি?

Rating: 3/10

 


The Play Bengali Movie Theatrical Trailer (You Tube)

 

SanjibSanjib Banerji takes a keen interest in both Old and Contemporary/modern Bengali literature and cinema and has written several short stories for Bengali Little magazines. He also runs a little magazine in Bangla, named – Haat Nispish, which has completed its 6th consecutive year in the last Kolkata International Book Fair. Being the eldest grandson of Late Sukumar Bandopadhaya, who was the owner of HNC Productions and an eminent film producer cum distributor of his time (made platinum blockbusters with Uttam Kumar, like “Prithibi Aamarey Chaaye”, “Indrani” and several others), Sanjib always nurtured an inherent aspiration of making it big and worthy in the reel arena. He has already written few screenplays for ETV BANGLA.
Sanjib can be reached at sanjib@sholoanabangaliana.com

The information and views set out in this movie review are those of the author and do not necessarily reflect the official opinion of the Publication/Organization. Neither the Publication/Organization nor any person acting on their behalf may be held responsible for the use which may be made of the information contained therein.

 

 

Enhanced by Zemanta

LEAVE A REPLY

Please enter your name here
Please enter your comment!