Graphic Novel Three Shadows – ‘সন্তানের মুখ ধরে একটি চুমো খাবো’

0
1330
graphic-novel-three-shadows

graphic-novel-three-shadows

আদিম প্রবৃত্তি কথাটা আদতে খারাপ নয়। প্রাণীজগতের আদিম প্রবৃত্তির তালিকায় অন্যতম স্থান অধিকার করে আছে ‘অপত্য স্নেহ’। শাহেন্‌শা বাবর আল্লার নিকট প্রার্থনা করেছিলেন তাঁর সন্তান হুমায়ুনের পরমায়ু, নিজের আয়ুর বিনিময়ে। আর LOUIS তার ছেলেকে সুরক্ষিত রাখার জন্য রূপান্তরিত হয়েছিল পাহাড়প্রমাণ এক দানবে। বাবরের ঘটনা ঐতিহাসিক কিন্তু দ্বিতীয় প্রসঙ্গটি একটি কাহিনীর অংশবিশেষ। যে গল্পের শুরুয়াৎ শহর থেকে দূরে এক নিরিবিলি জায়গায়, যেখানে একটি খামারবাড়িতে বাস করত ছোট এবং ভীষণ সুখী এক পরিবার।

ক্ষেতে ফলানো ফসল, একটু হুটোপাটি খেলাধূলা, অনেকটা পারিবারিক সম্পর্কের মজবুত জোড় আর খুব গরম লাগলে বাড়ির পিছনের পুকুরটায় সপরিবারে ঝপাং …… এই ছিল বাবা LOUIS, মা LUIS এবং তাদের ছোট্ট ছেলে JOACHIM- এর পরম শান্তির রোজনামচা। তবুও বিপদ এল। এক রাত্তিরে দূরের টিলার উপরে ঘোড়সওয়ার তিন ছায়ামূর্তির আদলে JOACHIM- দের জীবনে প্রবেশ করল দম চেপে ধরা আতঙ্ক। LOUIS প্রথমে গোটা ব্যাপারটাকে পাত্তা দিতে না চাইলেও, ঘটনাপ্রবাহ তার চোখে আঙ্গুল দিয়ে বুঝিয়ে দিল, তিন ছায়ামূর্তির আগমনের হেতু তার সন্তান JOACHIM। মা- এর বুক খালি করে দিয়ে সন্তানের প্রাণ বাঁচাতে ছেলেকে নিয়ে নিরুদ্দেশে পাড়ি দিল LOUIS। অথৈ নদীতে ভেসে, তারপর নাম না জানা দ্বীপে আশ্রয় নিয়ে, কোনোভাবেই সেই তিন করাল ছায়ার হাত এড়াতে না পেরে, শেষমেষ অলৌকিক উপায়ে LOUIS এক বিশাল ‘GOLEM’- এর রূপ ধারণ করল। JOACHIM- কে বাঁচাতে সে তাকে তার প্রকাণ্ড হাতের তালুর মধ্যে লুকিয়ে রাখলো। এত করেও কিন্তু …… কিন্তু, তবু, হয়তো, যদিও, কথাগুলি এই কাহিনীর ক্ষেত্রে একেবারেই লাগসই নয়। সন্তানস্নেহের তীব্র রূপের পাশাপাশি পাতার পর পাতা জুড়ে সাদাকালো চিত্ররেখায়, কখনো J.R.R. TOLKIEN- এর ঘরানায়, কখনো DISNEY- কে মনে পড়িয়ে আবার কিছু ক্ষেত্রে  Gabriel García Márquez অথবা HORHE LUIS BORHES- এর রচনারীতি অনুসরণে জাদুবাস্তবতার ছোঁয়ায়, নির্বিকার, কিছুটা নিষ্ঠুর অথচ তারই মধ্যে ফুটে ওঠা মানবিকতার আলো ছড়ানো নক্ষত্রের দিকনির্দেশ করেছে ‘THREE SHADOWS’।

graphic-novel-three-shadows

ফরাসী লেখক CYRIL PEDROSA-  র লেখা ‘THREE SHADOWS’ একটি গ্রাফিক নভেল। ‘HUNCHBACK OF NOTRE DAME’ বা ‘HERCULES’- এর মতো ডিজ্‌নী অ্যানিমেশন ফিল্মের সঙ্গে যুক্ত থাকার পর তিনি চলে আসেন গ্রাফিক নভেল রচনার জগতে। ২০০৮- এ ‘FIRST SECOND’ প্রকাশনা থেকে ইংরাজীতে অনূদীত হয় তাঁর অন্যতম সৃষ্টি ‘THREE SHADOWS’, মূল ফরাসী ভাষায় যার নাম ‘TROIS OMBRE’,  প্রকাশক – DELCOURT(২০০৭)। এই গ্রাফিক নভেলটির অন্যতম দিক‌‌চিহ্ন স্বয়ং লেখকের অঙ্কনশৈলী। PEDROSA-  র সাদাকালো রেখাগুলির প্রতিটি আঁকেবাঁকে রয়েছে এমন এক স্বতঃস্ফূর্ততার ভাণ্ডার যা এই গ্রাফিক নভেলের কাহিনীকে করে তুলেছে ভীষণ প্রাণবন্ত। বেশ কিছু ক্ষেত্রে প্যানেলগুলিতে কোনো স্পীচ্‌ বেলুন ব্যবহার করা হয় নি। তা স্বত্বেও শুধুমাত্র আঁকার জাদুতে চরিত্রগুলি তাদের সুখ-দুঃখ, আনন্দ-বেদনা, উল্লাস-আতঙ্কের সম্ভার নিয়ে লাভ করেছে প্রয়োজনীয় রক্তমাংস। CYRIL PEDROSA-  র ‘THREE SHADOWS’ এভাবেই একটি পরিবারের গল্পকে দেশ-কাল-সীমানার গন্ডী অতিক্রম করিয়ে পৌঁছে দেয় সেই জগতে যেখানে মরণের কালোছায়ার হাতছানি অস্বীকার করে, মানুষ নিজেই গড়ে তোলে নিজের পরিচয় – সে মৃত্যুঞ্জয়।

 

Graphic Novel Three Shadows Review By:

Indranil-Kanjilal

 

Professionally a high school teacher, Dr.Indranil Kanjilal has a passion for comics. Not only reading, he loves to explore this medium of visual storytelling by going through the history of comics’ universe. He also has a knack for writing short features. Being a post graduate student of Bengali literature he has completed his Ph.D. on eminent Bengali author Shirshendu Mukhopadhay.

 

 

LEAVE A REPLY

Please enter your name here
Please enter your comment!