Tag: 25se-baisakh

Cultural Event “Nomi Nomi Chorone” -Tribute To Rabindranath Tagore on His Birthday

Tagore-Birthday-Celebration

To mark the occasion of the birthday of Rabindranath Tagore, an evening of songs, dance, poetry recitation and so on was organized titled “Nomi Nomi Chorone”. This event is the joint venture of Aaarohon Music Academy and Arpezio (recording cum dubbing studio).

Singers like Srabani Sen, Riddhi Bandopadhyay, Chandrabali Rudra Dutta, Bidisha Senapati, Emon Chakraborty performed soulful songs from Tagore. Kaushik Chakraborty and Deblina Kumar kept the audiences mesmerized with their dance performances. RJ Rana, Suvadeep Chakraborty, Prabir Brahmachari, Madhumita Basu added color to the program with their recitation and narration.

Special guests at the event consisted of Debasish Kumar, Suman Chattopadhyay, Shankarlal Bhattacharya and others.

Nomi Nomi Chorone was an evening which aptly paid tribute to the Bard on his birthday.

Priyanka Dutta

Our Twitter Handle: @Sholoana1
Google+ ID: +Sholoana

‘Glimpses of Tagore’ Presented by Pianist and Designer Rajlakshmi Pays Fitting Tribute to Tagore

Tagore-anniversary-celebrations

“Glimpses of Tagore” was a lyrical journey held at Satyajit Ray Auditorium (ICCR) to pay tribute to Rabindranath Tagore. With the help of orchestra, music, songs and readings, different aspects of Tagore’s creative pursuits were highlighted. It was presented by Rajlakshmi Consultancy of the notable pianist Rajlakshmi.

Meeryung-Hall-performances

Srabani Sen, a great exponent of Tagore music sang some of Tagore’s gems at the event. Meeryung Hall (Wife of American Consul General in Kolkata) performed with the children from the weaker sections of the society at the same event. Aparajita Mukherjee, a gifted singer in her own right, coming from a corporate background, also sang Tagore songs. Rajeeb Chattopadhyay, a Customs officer by profession and also a singer of Folk and Tagore Songs and Barnani Bardhan , a trained Rabindrasangeet Singer were the other performers.

25Baisakh-celebrations-kolkata

Srabani Sen sang songs like Aji Shubho Dine, Katobar Bhebechhinu while Meeryung Hall sang Phoole Phoole Dhole Dhole, Purano Sei Diner Kotha. Designer and also a well known pianist Rajlakshmi played the tune of Tagore song like Rimjhim Ghano Ghano Re and so on.

Subha Pal, a former Television Journalist and a writer-director with a number of successful stage productions has conceptualized and written the script of “Glimpses of Tagore”.

 “Glimpses of Tagore” was indeed a great tribute to the Bard.

Priyanka Dutta

Connect with us on Facebook at: https://www.facebook.com/sholoanabangaliana?ref=hl

Our You Tube Channel: https://www.youtube.com/channel/UC2nKhJo7Qd_riZIKxRO_RoA

Our Twitter Handle: @Sholoana1

Google+ ID: +Sholoana

Thakur @ Tagore: Interpreting Tagore, (Sholoana Bangaliana 25 Se Baisakh Special Feature)

ঠাকুর @ টেগোর

একঝাঁক কচিকাঁচা, জায়গাটা কলেজ ফেস্ট, দক্ষিণ কলকাতার কোনও এক কলেজ হবে। কয়েকটি ইংরেজি গানের পরেই শুনতে পেলাম “পাগলা হাওয়া বাদল দিনে” গানটা অতীব সুন্দর, কিন্তু নেহাতই সেটা কলেজ ফেষ্ট তাই। বয়ঃজ্যেষ্ঠ অর্থাৎ বাড়ির দাদু-দিদারা শুনলে ভ্রু কুঁচকাতেন সে ব্যাপারে হলফ করে বলতে পারি। কারন যে সুরে গানটা চলছে তা তাঁদের যুগের অকল্পনীয় ব্যাপার। হতে পারে এটা রবীন্দ্রসঙ্গীত তবে এখানে গীতিকার কবিগুরু হলেও সুরকার কিন্তু নীল দত্ত (Neel Dutt)। গানের দুনিয়ায় নবজাগরণ না ঘটলেও ঘটেছে আলোড়ন। যার ফল আমাদের নতুন নাগরিকদের মুখে রবীন্দ্রসঙ্গীত। সত্যিই, কী অভাবনীয়!!! তাই না!!!

যাই হোক আজ আমরা কিন্তু সঙ্গীতের ওপর গবেষণা করছি না। যা করতে বসেছি তা হল বাংলায় “আড্ডা মারা”। ঠিক তাই। যে আড্ডা মারা যায় পাড়ার দেবুদার চায়ের দোকান কিংবা বইপাড়ার কফি হাউসে বসে। আড্ডার গান ও আলোচনা।

আচ্ছা তোমরা লক্ষ্য করেছো যে “বোস, দ্য ফরগটেন হিরো (২০০৫)” র “একলা চল রে” কি দারুন জোয়ার এনেছিল গানের জগতে। যদিও গানটা তৈরি হয়েছিল তারও আগে শ্রীপদ কালেকশন নামক অ্যালবামে, শিল্পী সোনু নিগম (Sonu Nigam) ও নচিকেতা (Nachiketa Chakraborty)। গানটি এই প্রসঙ্গে আসার কারন একটাই। রবি ঠাকুরেরে ওই “একলা চল রে” কি অদ্ভুতভাবে বদলেছে “তনহা রাহি আপনি রাহা চলতা যায়েগা” রবীন্দ্রনাথ কি তাঁর গানে কোনদিন এরকম একা চলার কথা বলেছিলেন, না লক্ষ্য ছোঁয়ার অভিপ্রায় একলা চলার বাধ্যতাকে বুঝিয়েছিলেন। আসলে এরকম কোনো বিবরণ দেওয়া যায় না, বলেই বোধ হয় গানের জগতে বিবর্তন ঘতে যায়। আমরা নির্দিষ্ট করে বলতে পারি রবীন্দ্রসঙ্গীত হলেও “পাগলা হাওয়া” গানটি কিন্তু শ্রেয়া ঘোষাল এরই (Sreya Ghoshal)। ফারাক একটাই, রবি ঠাকুর “উঃলালা” শব্দটা এই গানটির আগে যোগ করেননি। আধুনিক যন্ত্রসঙ্গীতের ব্যাবহার করলেও দোহারের গাওয়া চার মিনিট তেরো সেকেন্ডের এই গানটির সুরকার রবীন্দ্রনাথই ছিলেন এবং এবং গানটি শুনে মনে হল বাতাসের এক পাগলামি বর্ণনা করেছিলেন করেছিলেন কবিগুরু, অপরদিকে বিবর্তিত গানটি যথেষ্ট আধুনিক ও পাশ্চাত্য সুর মেশানো এক বাংলা গান।  যা ইংরেজিতে বলা হয় রিমিক্স। এ প্রসঙ্গে মনে রাখা ভালো আমরা কিন্তু গানের ভালোমন্দ বিচার করছি না। যা করছি তা হল কাটাছেঁড়া। যতই হোক বাঙ্গালী পি. এন. পি. সি ছাড়তে পারে না। যতই হোক বাঙ্গালীর আর একটা গুন বলতেই হয়, তা হল পরিবর্তন। সত্তরের দশকে বাঙ্গালী ছিল আবার বাঙ্গালিয়ানাও ছিল। আজ ওই দুটোই আছে। তবে আছে পরিবর্তিত রূপ।

যাই হোক প্রসঙ্গে ফিরি। মনে পড়ে গেল দু হপ্তা আগের কথা। বসেছিলাম রবীন্দ্রসদনের মাঠে। হঠাৎই নজরটা আটকাল বছর উনিশের একটা মেয়ের দিকে। জিন্স-টপ পড়লেও তার ঐতিহ্যবোধটাও দেখার মতো। বিশেষত্ব দেখলাম গলায়। অবলীলায় গেয়ে চলেছে একের পর এক রবীন্দ্রসঙ্গীত। হয়ত রবীন্দ্রনাথ সচক্ষে দেখলে আনন্দে গদ গদ হয়ে বলতেন, “আমার পরাণ যাহা চায়, তুমি তাই গো”। বেশ চলছিল জলসাটা। শেষ হল মায়াবন বিহারিণী হরিণী তে। সত্যিই গীটারের কর্ড-এ অদ্ভুত শুনতে লাগছিলো লাগছিল গানটাকে। শব্দগুলো চিনতে পারলেও সুরটা অচেনাই ঠেকল। আসলে এই শব্দগুলো নিয়ে যে গান আমরা শুনেছি টা ছিল অতীত। বর্তমানে বাংলা চলচ্চিত্র “বেডরুমে” ব্যাবহৃত এই তিন মিনিট দশ সেকেন্ডেই বাঙ্গালীকে আপন করে নিয়েছে। আপন হয়ে গেছেন শিল্পী সোমলতা আচার্য চৌধুরীও (Somlota Acharya)। ফেসবুক বা অরকূট কিংবা টুইটারেও আলোচিত প্রসঙ্গ ওই একই। তবে সে যাই ঘটুক রবীন্দ্রসঙ্গীত বদলে কিন্তু মানুষের মন জয় পেরেছে। হোক না তাঁর সুরকার অন্য কেউ, রচয়িতা তো কবিগুরু নিজেই। এক্ষেত্রে সার্থক তিনি। “দশে মিলি করি কাজ হারি জিতি নাহি লাজ”।

বাঙ্গালী এখন বেশি আবেগ তাড়িত হয়ে পড়েছে? ইঁদুর দৌড়ে হাঁপিয়ে সেন্টিমেন্ট খুঁজছে? নাকি একঘেয়েমি থেকে বেরোবার জন্য বিপ্লব আনছে? এ প্রসঙ্গে মনে পড়ল কয়েকদিন আগে পড়া নিমাই ঘোষ (Nimai Ghosh)-এর “Manik Da, Memories of Satyajit Ray”-এর একটি বাক্য, “Bengalish are sentimental people”. এসময়ে সত্যি “আমায় যদি হঠাৎ কোন ছলে/ কেউ করে দেয় আজকে রাতের রাজা”, তবে রবি ঠাকুরকে আহ্বান জানিয়ে তাঁর মনভাবটা জানতে চাইতাম। তিনি কি বলবেন “যা না চাইবার, তাই আজ চাই গো,” নাকি বলবেন, “তনহা রাহি আপনি রাহা চলতা যায়েগা, আব তো জো ভি হোগা দেখা যায়েগা”।

Image Credits: Google Images

Article on Tagore By :

Subhasree Biswas

Subhasree Biswas is pursuing her Masters Degree in Mass Communication from Rabindra Bharati University, Kolkata. She is a part time model, anchor person and also takes keen interest in performing arts. Previously, She has worked as freelance content writer (Bengali) for a leading Bangla web magazine. Subhasree has hosted events as MOC for leading Brands like ABP and DELL.