Tag: bangla-theater

Future Footprints Obhijatra Mesmerizes Audience on Day 2 with Performances by Acclaimed Impersonators

Obhijatra-performances

Conceptualized by arts personality Sujoy Prasad Chatterjee and presented by Future Media School, FUTURE FOOTPRINTS OBHIJATRA reflected the journey of artists who challenged their gender and converted it into a performance to give it a broader spectrum of art. The two day event saw spirited performances by many artists and felicitation of such impersonators who have created magic with their art.

Obhijatra-performances

The final day of this two-day arts fiesta on impersonation began with an insightful presentation on the history of impersonation in the theatre of the west by acclaimed scholar and critic Prof. Ananda Lal. This was followed by artistic performances where the essence was the fact that gender is above genitals—it is spectrum of arts.  Rohit Shantanu Nath played the quintessential Nandini of Raktakarabi, Suprovo Tagore and Samantak of Shriek of Silence chose The Vagina Monologues and Maya Angelou’s poetry for their perspectives of gender. Aditya Sengupta and Kheya Chattopadhayay weaved in magic through a brief presentation of three eternal Broadway songs to communicate their ideas of gender-fluidity. Usha Ganguly’s readings of Manto’s letters and Sohini Sengupta’s portrayal of Shylock heightened the spirit of the evening. Pranati Tagore’s powerful rendition of KARNA, a poem by Sabyasachi Deb was mesmerizing.  Nivedita Bhattacharya and Shuktara Lal’s presentation challenged the ethos of patriarchy. Actors of Nandikar presented an absolutely fascinating collage of performances based on texts by Rabindranath Tagore. Sujoy Prasad Chatterjee’s portrayal of Lady Macbeth was dark and intense.

Obhijatra-monologues

The select audience comprised the likes of Rudraprasad Sengupta, Swatilekha Sengupta, Barun Chanda, Bijoylakshmi Burman, Parama Banerjee and many others.

Priyanka Dutta

Connect with us on Facebook at: https://www.facebook.com/sholoanabangaliana?ref=hl

Our You Tube Channel: https://www.youtube.com/channel/UC2nKhJo7Qd_riZIKxRO_RoA

Our Twitter Handle: @Sholoana1

Google+ ID: +Sholoana

Youth Theater Festival with theme “The Internet has touched us all” saw Presentation of Interesting Concepts around Social Media

Vodafone-Theater-Festival

The second edition of the youth theatre competition Vodafone Odeon First Stage was held at G. D. Birla Sabhagar. The youth theater competition was won by Saifee Hall with their play “The Internet has touched us all”. The first runner up at the event was Ashutosh College with their play “Ontorjaal” and the second runners up title went to Calcutta Institute of Engineering and Management for the play “Facebook and us”. This youth festival was held along with the Vodafone Odeon Theater Festival.

Vodafone has been organizing this annual theater festival in the city for a decade now. This platform has been a great way of promoting theatre and also giving the audience a chance to witness the performances of the finest local and national theatrical productions.

Kolkata-Theater-Festival

With the help of this youth theatre festival, the youth of the city get a chance to showcase their talents to a broader audience too. Participating schools and colleges included Lady Brabourne College, Techno India College, Narula College, Ashutosh College, Hazra Law College, St Paul College, CIEM College, Jogesh Chandra College, Sudhir Chandra Swe Degree Eng College, Dream Institute of Technology, New Alipur College, PCMM College, Shivnath Sastri College, Heramba Chandra College, Behala Pannasree College, Sursana College and Deshbandhu College.

The performances were judged by an eminent jury consisting of theater stalwarts like Satinath Mukhopadhyay, Jagannath Bose, Raja Bhattacharya and Dulal Lahiri. The contestants were judged on the basis of discipline, dramatizing/acting, scripting, concept and overall impact.

Initiatives of this kind are always welcome and we hope that Vodafone continues with this good job in future too.

Priyanka Dutta

Our Twitter Handle: @Sholoana1
Google+ ID: +Sholoana

Bengali Theater Rwituparno Ghosh – Review; A Play that Carries the Message of Being Yourself

Bengali Theater 'Rwituparno Ghoshনতুন নাট্যগোষ্ঠী ‘শব্দমুগ্ধ’-র নবতম প্রযোজনার নাম যখন শুনলাম ‘ঋতুপর্ণ ঘোষ’, তখন প্রথমেই যে কথা মাথায় এসেছিলো, তা হল – এ আবার কেমন গিমিক? একজন শ্রদ্ধেয় তথা কৃতি শিল্পী ব্যক্তিত্ত্ব আমাদের ছেড়ে অকালে চলে গেলেন আর তাকেই কিনা নাটকের মঞ্চে টেনে আনা হচ্ছে? আসলে এমন মনভাবের পিছনে কারনও ছিল বিস্তর। ঋতুপর্ণ ঘোষ (Rituparno Ghosh) এমন একজন মানুষ ছিলেন যার গুণগ্রাহীর যেমন অভাব ছিলনা, ঠিক তেমনি ঋতুদার সাজ-পোশাক, সেক্সুয়াল প্রেফারেন্স সংক্রান্ত অবৈধ, অযাচিত অপরিণত কৌতূহলের অন্ত আমাদের সমাজে খুব একটা কম ছিল না। আসলে যেকোন প্রকারের গণমাধ্যমের সঙ্গে যুক্ত কোন মানুষ যদি একটুও ‘অন্যধারা’-র হন তাহলে তাকে সমাজের গোঁড়ামির কাঠগড়ায় দাঁড় করানোর একটা চেষ্টা ছিদ্রান্বেষীরা করে যেতেই থাকেন। তাই ঋতুদার মৃত্যুর কয়েক মাসের মধ্যেই যখন ‘ঋতুপর্ণ ঘোষ’ শিরোনাম দিয়ে নাটকের অবতারনা ঘটলো তখন ঘর পোড়া গরুর মতো সিঁদুরে মেঘ দেখে আমরা অনেকেই কিছুটা ভয় পেয়েছিলাম। মৃত্যুর পরেও মানুষটার ব্যেক্তিগত জীবন নিয়ে আবার ময়না তদন্ত শুরু হয়ে যাবেনা তো!! তাই…

এরকম আশা আশঙ্কার দোলাচল মনের মধ্যে বহন করে দেখতে গেছিলাম ‘শব্দমুগ্ধ’-র নতুন নাটক ‘ঋতুপর্ণ ঘোষ’। নাটক শুরু হওয়ার পরে বুঝতে পারলাম যে আমাদের আশঙ্কা ভ্রান্ত। এই নাটকে ‘ঋতুপর্ণ ঘোষ’ নামটি ব্যবহৃত হয়েছে এক ‘রূপক’ (metaphor) হিসাবে। এই নাটকের যে কেন্দ্রীয় চরিত্র তার জীবনযাত্রার অনেকাংশ জুড়েই ওতপ্রোত ভাবে জড়িয়ে আছেন ঋতুপর্ণ ঘোষ। ব্যেক্তি ঋতুপর্ণ ঘোষের থেকেও এখানে উজ্জ্বল রূপে প্রতিফলিত হয়েছে প্রয়াত ‘ঋতুপর্ণ ঘোষ’ – এর জীবনদর্শনের সারাৎসার।

এই নাটকের নায়ক রঞ্জন, দেহে পুরুষ হলেও মনে এক নারী। রঞ্জনের এই অন্য ধারার স্বাধীন যৌন চেতনাকে মন থেকে মেনে নিতে পারেন না তার অধ্যাপিকা মা এবং আপাত নিরীহ সংবেদনশীল বাবা। রঞ্জনের মা ছেলের এই স্বাধীন যৌনপরিচয়কে কড়া হাতে দমন করার চেষ্টা করে চলেন। রঞ্জনের বাবা সন্তানের এই যৌনচেতনাকে কে পুরোপুরি গ্রহণযোগ্য বলে মনে না করলেও, সেটিকে একেবারে অস্বীকার করতেও পারেন না। রঞ্জনের একমাত্র বান্ধবী বলতে তার বাবার ছোট বোন, তার ‘চিনু পিসি’। চিনু পিসির সঙ্গেই তার মনের ভাবের আদানপ্রদান।

এই নাটকের ব্যাপ্তিকাল ঋতুদার মৃত্যুর দিনের বৃষ্টিস্নাতা কলকাতা শহরের সকাল থেকে সন্ধা। রঞ্জন নিজের জীবনপুরের পথপ্রদর্শক ঋতুপর্ণ ঘোষের অন্তীম যাত্রার সঙ্গিনী হতে চায় কিন্তু তার অভিভাবকরা তাকে ওইদিন বাড়ি থেকে বেরনোর অনুমতি দেন না। এই নিয়েই শুরু হয় সম্পর্কের পারস্পরিক টানাপড়েন। এই টানাপড়েনে ক্রম পর্যায়ে যুক্ত হয়ে পড়েন রঞ্জনের চিনু পিসি, তার ছেলে, দিদিমা এবং একজন স্বার্থপর N.G.O কর্মসঞ্চালক। ঋতুদার প্রয়ানের দিনেই এক এক করে কাছের মানুষদের মুখোশ খসে পড়তে শুরু করে রঞ্জনের মনের চোখের সামনে। দর্শকাসনে বসে আমাদের মনের মধ্যেও প্রশ্ন জাগতে শুরু করে নিজের অজান্তেই জীবনের অন্তীম লগ্নে পৌঁছে ঋতুপর্ণ ঘোষ-ও কি এমন আত্মপলব্ধির সম্মুখীন হয়েছিলেন? যখন তার কাছের মানুষগুলির মেকি মুখোশগুলো একে একে খসে পড়েছিল। রঞ্জন আর তার আধুনিকা তথা স্বাধীনচেতা চিনু পিসির অন্তরঙ্গ সম্পর্কের মধ্যে দিয়ে আমরা যেন ঋতুপর্ণ ঘোষ এবং তার রীনাদি অর্থাৎ অপর্ণা সেন-কে (Aparna Sen) খুঁজে নিতে পারি।

অভিনয়ে প্রত্যেক অভিনেতা/অভিনেত্রী আন্তরিক তথা অনবদ্য অভিনয়ের নিদর্শন রেখেছেন। বিশেষ করে বলতে হবে কেন্দ্রীয় চরিত্রে রঞ্জন বসুর (Ranjan Basu) কথা। রঞ্জনের অভিনয় দেখতে দেখতে ঠিক যেন মনে অল্পবয়সী ঋতুদাকে দেখছি। এই নস্টালজিয়াটার জন্যে অভিনেতা রঞ্জন এবং নাটকের রচয়িতা তথা পরিচালক রাকেশ ঘোষকে জানাই অনেক ধন্যবাদ। বাকিরাও বেশ ভাল অভিনয় করেছেন। নুপুর বন্দপাধ্যায় (Nupur Banerjee), স্বাতী চক্রবর্তী (Swati Chakraborty) এবং শম্পা দে (Shampa Dey) তিন অভিনেত্রীই খুব ভালো কাজ করেছেন। নাটকের কাহিনীর উৎস, প্রবাহ এবং ধারা তিন দিকই বেশ জোরালো। রাকেশ যে ধন্যবাদ এমন একটি সময়োপযোগী নাট্য প্রযোজনা আমাদের উপহার দেওয়ার জন্যে। সুপ্রিম কোর্ট সমকামী সম্পর্ক (Homosexuality) নিয়ে এমন এক অমানবিক রায় দেওয়ার পরে তো এমন এক নাটক কলকাতার রঙ্গমঞ্চে রীতিমতন বৈপ্লবিক পদক্ষেপ। নাট্যকার-পরিচালক রাকেশ ঘোষকে (Rakesh Ghosh) অনেক অনেক অভিনন্দন এমন এক সুন্দর প্রযোজনা বাঙালি নাট্যসমাজকে উপহার দেওয়ার জন্যে। এই নাটক প্রকৃতঅর্থেই আমাদের সবার প্রানের সখা ঋতুপর্ণ ঘোষ-কে এক বিনম্র শ্রদ্ধাঞ্জলী।

A young theatre group Shabdomugdho has created the Bengali Theater Rwituparno Ghosh. It is not a biography of the filmmaker but a tribute to one of Bengal’s most prolific and influential cultural producers, which actually shows Rituparno’s lasting impact on the younger generation.

 

Bengali Theater Rwituparno Ghosh Review By:

SanjibSanjib Banerji takes a keen interest in both Old and Contemporary/modern Bengali literature and cinema and has written several short stories for Bengali Little magazines. He also runs a little magazine in Bangla, named – Haat Nispish, which has completed its 6th consecutive year in the last Kolkata International Book Fair. Being the eldest grandson of Late Sukumar Bandopadhaya, who was the owner of HNC Productions and an eminent film producer cum distributor of his time (made platinum blockbusters with Uttam Kumar, like “Prithibi Aamarey Chaaye”, “Indrani” and several others), Sanjib always nurtured an inherent aspiration of making it big and worthy in the reel arena. He has already written few screenplays for ETV BANGLA.
Sanjib can be reached at sanjib@sholoanabangaliana.com
The information and views set out in this movie review are those of the author and do not necessarily reflect the official opinion of the Publication/Organization. Neither the Publication/Organization nor any person acting on their behalf may be held responsible for the use which may be made of the information contained therein.

 

 

 

Enhanced by Zemanta